১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

বিদেশ থেকে এইডস নিয়ে দেশে

হোসাইন আহমদ সুজাদ, সিলেট প্রতিনিধি হেলথ নিউজ | ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:১২ | আপডেটেড ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩:১২

MG-edit

প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে এইচআইভি (এইডস) আক্রান্তের সংখ্যা; আক্রান্তদের বেশিরভাগই বিদেশ থেকে আসা।

গত ১০ বছরে এ অঞ্চলে এইচআইভি পজিটিভের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫৪ জনে। এ পর্যন্ত ৩৬০ জন মারা গেছেন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখনই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে সিলেটে এইডস মহামারির আকার নিতে পারে।

এ অবস্থায় বিমানবন্দর ও সীমান্ত চেকপোস্টে এইচআইভি পরীক্ষা শুরু করার উপর গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা।

বেসরকারি সংস্থা আশার আলো সোসাইটির এক জরিপে দেখা যায়, ১৯৯৮ সালে সিলেটে প্রথম মধ্যপ্রাচ্যের দেশ আরব আমিরাত ফেরত এক শ্রমিকের দেহে সন্ধান মেলে এইচআইভির যার বাড়ি ছিল ছিল কানাইঘাটে।

এইচআইভি আক্রান্তদের ৯৮ শতাংশই অভিবাসী শ্রমিক বলে জরিপের তথ্য।

সিলেটে ২০০৩ সালে এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২৮ জন। চলতি বছর তা বেড়ে ৮৫৪ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্য পুরুষ হচ্ছেন ৫৫৭ জন, নারী ২৬৪ জন; রয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গেরও।

আশার আলো সোসাইটির সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়কারী আব্দুর রহমান হেলথ নিউজকে বলেন, প্রতি বছর সিলেটে ৫০ জনেরও বেশি মানুষের দেহে এইচআইভি পজিটিভ ধরা পড়ছে।

“সিলেটে যেসব শ্রমিক বিদেশে কাজ করতে যান, তাদের এইডস সম্পর্কে কোনো ধারণা না থাকায় তারা সেখানে গিয়ে অবাধে মেলামেশা করার কারণে এইডস ছড়িয়ে পড়ছে।”

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এইচআইভি আক্রান্তদের বিনামূল্যে সব ধরনের চিকিৎসা দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়ায় সেবা নেওয়ার প্রবণতাও বাড়ছে।

জাতীয় এইডস/এসটিডি প্রোগ্রামের তত্ত্বাবধানে এবং ইউনিসেফের সহায়তায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বাস্তবায়িত এইচআইভি সেবা জোরদারকরণ কার্যক্রম কর্তৃক আয়োজিত ষান্মাসিক স্টেকহোল্ডার সভায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

সিওমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. এ কে মাহবুবুল হক হেলথ নিউজকে বলেন, “আমরা আমাদের হাসপাতাল হতে এইচআইভি আক্রান্তদের সবধরনের সেবা প্রাপ্তির পরিবেশ নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছি।”

তিনি জানান, বর্তমানে ৪৭৮ জন এইচআইভি আক্রান্ত ব্যক্তি নিয়মিত এআরভি ওষুধ গ্রহণ করেছেন।

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সব গর্ভবতী নারীদের এবং স্বেছায় আসা যে কোনো ব্যক্তির বিনামূল্যে এইচআইভি পরীক্ষা করা হয়। পাশাপাশি এইচআইভি আক্রান্তদের ওষুধসহ সব ধরনের স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হয় বিনামূল্যে।

সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায় হেলথ নিউজকে বলেন, “গত ছয় মাসে ওসমানী মেডিকেলের গাইনি বিভাগে পাঁচজন গর্ভবতী নারীকে এইচআইভি আক্রান্ত হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার যে তথ্য আমরা দেখতে পেলাম, তা আমাদের জন্য মোটেই সুখকর নয়। আমাদের এখনই এ ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।”

এইডস প্রতিরোধে সবাইকে সচেতন করার উপর জোর দেন তিনি।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

            শীতের শুরুতে শিশুর যত্ন

300-250
promo3