২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

কর্মক্ষেত্রে ডাক্তার না পেলে ওএসডি করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ২৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:০১ | আপডেটেড ৩১ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:০১

-------------

কর্মক্ষেত্রে ডাক্তারকে পাওয়া না গেলে সঙ্গে সঙ্গে ওএসডি করে নতুন ডাক্তার নিয়োগ দিতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী ও উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মতবিনিময়ে প্রধানমন্ত্রীর এই নির্দেশনা আসে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “হাসপাতালে ডাক্তাদের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করুন। কর্মক্ষেত্রে ডাক্তারকে পাওয়া না গেলে সঙ্গে সঙ্গে ওএসডি করতে হবে। আমার নির্দেশ, আজ থেকে যে হাসপাতালে যে ডাক্তারকে পাওয়া যাবে না সঙ্গে সঙ্গে তাকে ওএসডি করতে হবে। পরেরটা পরে দেখা যাবে।”

সরকারি হাসপাতালে ডাক্তারদের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে বায়োমেট্রিক পদ্ধতি চালু করার নির্দেশ দেন তিনি।

পৃথিবীর বহু দেশে সরকারি চাকরি থাকাকালীন প্রাইভেট চাকরি করতে পারে না উদাহরণ তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের ডাক্তাররা সবসময় প্রাইভেট চিকিৎসা দিতেই পছন্দ করে। এমনকি সিঙ্গাপুরেও যাবেন, এনইউএইচের ডাক্তাররা প্রাইভেট চিকিৎসা করতে গেলে ওই হাসপাতালের মধ্যেই আলাদা ব্যবস্থা আছে।”

বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আউটডোরেও ইতোমধ্যে এ ধরনের একটি ব্যবস্থা চালু করার কথা জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “এটা কিন্তু আমরা অন্যান্য জেলা হাসপাতালেও করে দিতে পারি, যেন তাদের বাইরে না যেতে হয়। সন্ধ্যার পরে বা ছুটির সময় ওখানেই একটা প্রাইভেট প্রাকটিসের ব্যবস্থা বা আলাদা একটা উইং করে দেয়া যেতে পারে।

নার্সরা যদি সেবা দিতে না চান, তাহলে তাদের চাকরি ছেড়ে দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছেন শেখ হাসিনা।

পাশাপাশি বেসরকারি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে কী ধরনের পড়াশোনা হচ্ছে সে বিষয়ে তদারকি বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, “নার্সদের ব্যাপারে, আমি তাদের সন্মান দিয়েছি ঠিক। কিন্তু রোগীর সেবাটা তাদের করতে হবে, এটা বাধ্যতামূলক। না করলে সে চাকরিতে থাকবে না, চলে যাবে। অনেক প্রাইভেট জায়গা আছে। কাজের অসুবিধা নেই। লোকেরও অসুবিধা নেই। আমরা টেইনিং করিয়ে নিয়ে আসব।”

দেশের প্রত্যেক জেলায় মেডিকেল কলেজের প্রয়োজন আছে কী না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “আসলে মেডিকেল কলেজ এত বেশি হয়ে যাচ্ছে, আর আমরা বাঙালি হুজেুগে মাতি। যে জায়গায় যায় সেখানেই একটা মেডিকেল কলেজ দরকার।”

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

              শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য, কী করবেন?

300-250
promo3