চর্ম রোগে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খেতে বারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:০৯ | আপডেটেড ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:০৯

skin-medicine

চর্ম রোগে আক্রান্তদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খেতে মানা করা হয়েছে এক অনুষ্ঠান থেকে।

ঢাকা ক্লাবে চর্ম রোগ বিষয়ে আয়োজিত এক বৈজ্ঞানিক সেমিনারে রোববার এই আহ্বান জানানো হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চর্ম ও যৌন রোগ বিভাগের উদ্যোগে এ সেমিনার হয়।

এতে বিশেষজ্ঞরা বলেন, ছত্রাক জাতীয় চর্ম রোগের চিকিৎসা, লেজারের মাধ্যমে চিকিৎসা ও কসমেটিক সার্জারির ক্ষেত্রে চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞদের আরও সচেতন ও সতর্ক হতে হবে।

অন্যদিকে রোগীদেরকেও আরও সচেতন হতে পরামর্শ দিয়ে তারা বলেন, চর্ম রোগ হলে চর্ম রোগ বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবন করা যাবে না।

অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিল বৈজ্ঞানিক অধিবেশন। এতে প্যানেল এক্সপার্ট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক এজেডএম মাইদুল ইসলাম, অধ্যাপক এম এ ওয়াদুদ, অধ্যাপক এম ইউ কবির চৌধুরী, অধ্যাপক আগা মাসুদ চৌধুরী, অধ্যাপক আকরাম উল্লাহ সিকদার, অধ্যাপক এম এ রউফ।

এতে ডার্মাটোলজি সার্জারি, সোরিয়াসিস (ত্বকের প্রদাহজনিত রোগ) রোগের প্রবণতা বিষয়ক গবেষণার ফলাফল, কুষ্ঠ রোগের জটিলতা ও চিকিৎসার সর্বশেষ অবস্থা, ছত্রাক জাতীয় চর্ম রোগের চিকিৎসা ইত্যাদি তুলে ধরা হয়। সোরিয়াসিস রোগের প্রবণতা বিষয়ক গবেষণার ফলাফলে জানানো হয়, বাংলাদেশের প্রতি এক হাজার জনে সাতজনের এই রোগের প্রবণতা রয়েছে আর কুষ্ঠ রোগের ক্ষেত্রে জানানো হয়, দেশে বর্তমানে কুষ্ঠ রোগের কার্যকর চিকিৎসা রয়েছে।

সেমিনারে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অধ্যাপক এম এ ওয়াহাব, সহযোগী অধ্যাপক ডা. অসিম কুমার নন্দী, ডা. দীপক কুমার দাস, সহযোগী অধ্যাপক ডা. রফিকুর মওলা, সহকারী অধ্যাপক ডা. তুষার কান্তি সিকদার।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক বলেন, চিকিৎসার ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের আমলে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ১২ হাজার চিকিৎসক, ১৫ হাজার নার্স ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক স্বাস্থ্য সহকারী নিয়োগ দিয়েছে।

“গণমানুষকে সেবা দিতে বর্তমান সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তৃণমূল্য স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতেই বর্তমান সরকার গ্রামেগঞ্জে আবারো কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করেছে।”

বিশেষ অতিথি পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা হাতুড়ে ডাক্তারদের বিষয়ে রোগীদের আরও সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন  চিকিৎসার বিষয়ে রোগী বা তাদের স্বজনদের কোনো অভিযোগ থাকলে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনে (বিএমএ) অথবা বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)কে জানাতে অনুরোধ করেন।

সেমিনারে সভাপতি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ও চর্ম ও যৌনব্যাধি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

দেশে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ

কমছে মৃত্যু, বাড়ছে স্বস্তি

খালি হাতেই পার হতে হবে দ্বিতীয় ঢেউ !

সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ

মৃত্যু পৌণে ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

পৌণে ১২ লাখ মানুষ মারা গেলেন

করোনায় মৃত ৫ হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসে পৃথিবীর ৮ লাখ মানুষ নেই

সাড়ে ৭ লাখের বেশি মানুষ মারা গেলেন করোনায়

বিশ্বে একদিনেই ২ লাখ আক্রান্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছেই

নির্ধারিত মুল্যে আইসিডিডিআরবিতে করোনা টেষ্ট

২৪ ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার আক্রান্ত

৩৮ থেকে বেড়ে মৃত্যু ৪৩

ব্রাজিলে একদিনেই শনাক্ত ৫৪ হাজারের বেশি

সপ্তাহ ধরেই মৃত্যু কমপক্ষে ৩৫

মৃত্যু নেমেছে ৪৫ থেকে ৩৭ জনে

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3