ডাক্তার হিসেবে কি মেয়েরা ভালো?

ডেস্ক রিপোর্ট, হেলথ নিউজ | ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০১ | আপডেটেড ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০১

sthtiscope

পড়াশুনা কিংবা অভিজ্ঞতায় কোনো পার্থক্য না থাকলেও পুরুষ চিকিৎসকের তুলনায় নারী চিকিৎসকের সেবায় রোগীরা বেশি ভালো ফলাফল পায় বলে মনে করছেন গবেষকরা।

আমেরিকান ব্রড অব ফ্যামিলি মেডিসিন সাময়িকীতে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়, নারী চিকিৎসকদের চিকিৎসায় মৃত্যুহার তুলনামূলকভাবে কম।

এক্ষেত্রে নারী ও পুরুষ চিকিৎসকের রোগীদের ওষুধের পেছনে অর্থ ব্যয়, চিকিৎসককে দেখানো বা হাসপাতাল থেকে প্রাপ্ত সুবিধার মধ্যে কোনো পার্থক্য খুঁজে পাননি গবেষকরা।

একই বিষয়ে অন্য কয়েকটি গবেষণায়ও উঠে এসেছে, নারী ও পুরুষ চিকিৎসকের রোগীদের চিকিৎসা ফলাফলের পার্থক্য মূলত চিকিৎসা সেবা দেওয়ার ধরনের কারণেই ঘটে।

গবেষকরা দেখেছেন, নারী চিকিৎসকরা তাদের পুরুষ সহকর্মীর চেয়ে চিকিৎসা বিধি বেশি অনুসরণ করেন।

নারী চিকিৎসকরা রোগীদের সঙ্গে মিশে যান সহজেই, এটাকেও ভালো ফলাফল পাওয়ার কারণ হিসেবে মনে করা হয়েছে কিছু গবেষণায়।

মেরিল্যান্ডের জন হপকিনস ব্লুমবার্গ স্কুল অব পাবলিক হেলথের হেলথ, বিহেভিয়র অ্যান্ড সোসাইটির অধ্যাপক ডেবরা রটার বলেন, “আমি ও আমার সহকর্মীরা যে কাজ করেছি, তাতে দেখেছি, পুরুষ ও নারী চিকিৎসকের কথাবার্তায় জেন্ডার বিষয়টি খুবই স্বতন্ত্রভাবে এসেছে।”

বেশ কয়েকটি গবেষণায় রটার ও তার সহকর্মীরা জেন্ডার সম্পর্কিত আলাপচারিতার পার্থক্য খুঁজে বের করতে চিকিৎসক ও রোগীর কথাবার্তার অডিও রেকর্ড পর্যালোচনা করেন।

এতে দেখা যায়, নারী চিকিৎসকরা তাদের পুরুষ সহকর্মীর তুলনায় রোগীদের সঙ্গে বেশি সময় কাটান। নারী চিকিৎসকরা রোগীর মতামত জানতে ও পরামর্শ দিতে জীবনযাত্রা, দৈনিক কর্মকাণ্ড, সামাজিক সম্পর্ক, স্ট্রেসের মতো বিষয়ে বেশি প্রশ্ন করেন।

রটার বলেন, “তারা (নারী) তুলনামূলকভবে বেশি সহানুভূতি, উদ্বেগ প্রকাশ করে এবং রোগীদেরকে আশ্বস্ত করে। তারা যেসব শব্দ ব্যবহার করে ও যেভাবে বলে তাতে ইতিবাচকতাই প্রকাশ পায়।”

অন্যদিকে রোগীরাও পুরুষ ও নারী চিকিৎসকের সঙ্গে ভিন্নভাবে কথা বলে। পুরুষ চিকিৎসকের চেয়ে নারী চিকিৎসকের কাছেই রোগীরা তাদের বিভিন্ন মানসিক সামাজিক অভিজ্ঞতা, জীবনধারা, তাদের শারীরিক সমস্যা, যেসব ওষুধ খেতে দেওয়া হয়েছে বা পরীক্ষা করতে দেওয়া হয়েছে, সেসব বিষয়ে আলোচনা করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে।

নারী চিকিৎসকরা রোগীর সঙ্গে আসা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও আলোচনা করেন অনেক সময়। বয়স্ক রোগীদের ক্ষেত্রে এটা অবশ্য বেশ জরুরি।

সংখ্যাগত দিক থেকে এসব পার্থক্য গুরুত্বপূর্ণ হলেও রটার একইসঙ্গে বলছেন, সব নারী চিকিৎসকই যে পুরুষ চিকিৎসকের চেয়ে ভালো, বিষয়টা এমন নয়।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

অনির্ণেয় রোগ নির্ণয় করেন যে চিকিৎসক

বাসাবাড়িতে ছিটানো হবে লার্ভিসাইড বিটিআই

ডেঙ্গুতে চিকিৎসকের মৃত্যু

ডেঙ্গু: ৬২% রোগী ঢাকার বাইরের

গর্ভ ভাড়া দিয়ে মা হন এই তরুণী

হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী ৬০ হাজার ছাড়াল

ডেঙ্গুতে মৃত্যু আগের সব হিসাব ছাড়াল

থ্যালাসেমিয়ার বিস্তার রোধে নীতিমালা তৈরির নির্দেশ

দেশে প্রথম ডেঙ্গুর সংক্রমণ কবে?

ডেঙ্গু: আরো ১০ মৃত্যু

ডেঙ্গুর টিকা নিয়ে ভাবছে সরকার

যে দুই কারণে প্রাণঘাতি হচ্ছে ডেঙ্গু

তাপদাহ ও দূষণে হৃদরোগে আক্রান্তদের মৃত্যুর ঝুঁকি

ডেঙ্গু: আক্রান্ত ছাড়াল ৪৪ হাজার

ডেঙ্গুতে একদিনে ১০ জনের মৃত্যু

মশা নিধনে ‘র‌্যাট’ নামছে

ডেঙ্গুতে মৃত্যু ছাড়াল ২০০

ডেঙ্গু মহামারীর পর্যায়ে যায়নি

কাজে ফিরছেন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট চিকিৎসকরা

শুকনো ফলের বাজার দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3