দুর্ঘটনা: চিকিৎসার নীতিমালার গেজেট প্রকাশের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ৮ আগস্ট ২০১৮, ২২:০৮ | আপডেটেড ৮ আগস্ট ২০১৮, ১০:০৮

HC-Ctg-Edit

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির চিকিৎসা সেবা ও সহায়তাকারীর সুরক্ষায় যে নীতিমালা সরকার করেছে, তাতে আদালতের পর্যবেক্ষণ যুক্ত করে গেজেট প্রকাশের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি ফরিদ আহমেদের হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এক রায়ে দুই মাসের মধ্যে স্বাস্থ্য সচিবকে এ গেজেট প্রকাশ করতে বলেছে।

এ সংক্রান্ত নতুন আইন না হওয়া পর্যন্ত এ নীতিমালাই আইন হিসেবে বিবেচ্য হবে বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়েয়ছে।

২০১৬ সালের ২১ জানুয়ারি দুর্ঘটনায় আহত হয়ে নিকটস্থ হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে আরাফাত নামের এক ব্যক্তির মারা যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে একটি রিট আবেদন করা হয়েছিল।

ওই রিট আবেদনে আদালতের রুলও হয়েছিল। ওই রুল যথাযথ ঘোষণা করে বুধবার রায় দিল হাইকোর্ট।

আদালতের রুল অনুযায়ী যানবাহন দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তির জরুরি চিকিৎসাসেবার স্বার্থে সরকার ‘জরুরি স্বাস্থ্যসেবা ও সহায়তাকারী সুরক্ষা প্রদান নীতিমালা-২০১৮’ প্রণয়ন করে। ওই নীতিমালার গেজেট প্রকাশ করতে বলা হয়েছে।

ওই নীতিমালায় বলা হয়েছে, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিকে কোনো হাসপাতাল চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত পাঠাতে পারবে না। চিকিৎসা সেবায় দেরি করা যাবে না এবং আহত ব্যক্তির আর্থিক সক্ষমতাও তখন বিবেচনা না করে চিকিৎসা দিতে হবে।

এতে বলা হয়, “আহত ব্যক্তির চিকিৎসা প্রদানে সক্ষমতা সম্পন্ন হাসপাতাল কোনো অবস্থাতেই চিকিৎসা না দিয়ে রোগীকে ফেরৎ বা স্থানান্তর করতে পারবে না।”

জরুরি চিকিৎসা সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে কোনো চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী ব্যক্তির অবহেলা বা শৈথিল্য অসদাচরণ হিসেবে বিবেচিত হবে; অবহেলা বা শৈথিল্য প্রদর্শন করলে নিবন্ধন বা লাইসেন্স বা অনুমতি প্রদানকারী কর্তৃপক্ষ ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে বিধিমত প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।]

আহত ব্যক্তির জরুরি শল্য চিকিৎসার কারণে তার জীবননাশের আশঙ্কা থাকলে বা জীবনহানি ঘটলে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের বিরুদ্ধে কোনো আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা যাবে না বলেও উল্লেখ আছে নীতিমালায়।

এতে আরও বলা হয়, আহত ব্যক্তির সহায়তাকারী কোনো কাজের জন্য দায়ী হবেন না। তার প্রতি লিঙ্গ, ধর্ম, জাতীয়তা, বর্ণ বা অন্য কোনোরূপ বৈষম্য প্রদর্শন বা হয়রানি করা যাবে না।

নীতিমালায় বলা আছে, আহত ব্যক্তিকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সুবিধা সম্বলিত হাসপাতালে স্থানান্তরের ক্ষেত্রে কোনো অ্যাম্বুল্যান্স পাওয়া না গেলে সংশ্লিষ্ট এলাকার আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপযুক্ত যানবাহনের ব্যবস্থা করবেন। অথবা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহায়তা গ্রহণ করবেন।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

দেশে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ

কমছে মৃত্যু, বাড়ছে স্বস্তি

খালি হাতেই পার হতে হবে দ্বিতীয় ঢেউ !

সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ

মৃত্যু পৌণে ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

পৌণে ১২ লাখ মানুষ মারা গেলেন

করোনায় মৃত ৫ হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসে পৃথিবীর ৮ লাখ মানুষ নেই

সাড়ে ৭ লাখের বেশি মানুষ মারা গেলেন করোনায়

বিশ্বে একদিনেই ২ লাখ আক্রান্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছেই

নির্ধারিত মুল্যে আইসিডিডিআরবিতে করোনা টেষ্ট

২৪ ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার আক্রান্ত

৩৮ থেকে বেড়ে মৃত্যু ৪৩

ব্রাজিলে একদিনেই শনাক্ত ৫৪ হাজারের বেশি

সপ্তাহ ধরেই মৃত্যু কমপক্ষে ৩৫

মৃত্যু নেমেছে ৪৫ থেকে ৩৭ জনে

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3