দেশে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ২৬ এপ্রিল ২০২১, ১২:০৪ | আপডেটেড ১ মে ২০২১, ০১:০৫

CORONA-DAFON

বিশ্বব্যাপি করোনার সংক্রমণ কমে আসার প্রেক্ষিতে দেশেও যে স্বস্তি ফিরে এসেছিল মাত্র এক মাসের ব্যবধানে তা আবার রুপ পাল্টে ফেলেছে। ফেব্রুয়ারি মাসের ২৪ তারিখে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা ৫ জনে কমে এলেও এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে তা উর্দ্বগতিতে ছুটছে। মার্চের ২৫ তারিখে মৃত্যুর সংখ্যা ৩৪ হলেও এপ্রিলের ২৫ তারিখে ছাড়িয়ে গেছে শতকের ঘর। একই সাথে এই অশান্ত এপ্রিল দেশের মোট মৃত্যুর পরিসংখ্যানকে টেনে নিয়ে গেছে ১১ হাজারের উপরেও।

এমন বাস্তবতার মধ্যে কমেছে পরীক্ষার সংখ্যা। ফলে কমেছে শণাক্তের পরিসংখ্যান। গত ১২ এপ্রিল দেশে ৩৪ হাজার ৯৬৮ জনের করোনা টেস্ট করানো হয়। যার বিপরীতে শনাক্তের পরিমাণ ছিল ৭ হাজার ২০১ জন। গত ১৭ এপ্রিল টেস্ট ১৬ হাজার ১৮৫ জনে নেমে দাঁড়ায়। তখন শনাক্ত হন ৩,৪৭৩ জন। আবার গত ২১ হাজার ৯২২ জনের টেস্ট সম্পন্ন হয়। যেখানে শণাক্ত মিলেছে ২,৯২২ জন। হঠাৎ করে এই কমে যাবার কারণ লকডাউনের বিধি নিষেধ ও বিদেশমূখী শ্রমিকদের করোনা টেস্ট কমে যাওয়ার কথা অনানুষ্ঠানিকভাবে জানায় স্বাস্ধ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। অবশ্য ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত দেয়া লকডাউন আর বাড়ানো হয়নি। খুলে গেছে দোকান পাট শপিং মলও।

এমন অবস্থার মধ্যেই ২৬ এপ্রিল থেকে বন্ধ হয়ে গেছে করোনার প্রথম ডোজ দেয়ার কর্মসূচি। তবে আগে থেকে নেয়া ব্যক্তিদের ২য় ডোজ নিশ্চিত করা হয়েছে। মূলত ভ্যাকসিনের মজুত সংকটকের কারনেই সরকারকে এমন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক এবিএম খূরশীদ আলম জানিয়েছেন, আগামী মাসের শুরুতেই অন্তত ৩টি ক্ষেত্র থেকে করোনার টিকা আসার সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র রোবেদ আমিন জানান, “৬ লাখ টিকা বাংলাদেশকে উপহার দিচ্ছে চীন।”

এর আগেই অধিদপ্তরের মুখপাত্র ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বিবিসিকে জানিয়েছিলেন, ‘‘ভারত যদি টিকা রপ্তানী বন্ধ করে দেয় এবং তার ফলে  আর কোনো টিকা যদি না আসে তাহলে নতুন করে টিকা দেয়া কঠিন হয়ে পড়বে।’’ সরকারি সূত্রমতে, গত ৭ ফেব্রুয়ারি টিকাদান কর্মসূচি শুরুর পর থেকে গত ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের ৫.৭৮ মিলিয়ন মানুষ প্রথম ডোজের টিকাগ্রহণ করেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার পর্যন্ত দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সাত লাখ ৪৫ হাজার ৩২২ জন। মারা গেছেন ১১ হাজার ৫৩ জন। গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের ঘোষণা আসে। দেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তির মৃত্যুর ঘোষণা আসে ১৮ মার্চ।

মহামারি করোনা বিশ্বজুড়ে প্রতিদিনই নতুন চেহারায় রুপ নিচ্ছে। সেইসঙ্গে বিশ্বের বিভিন্ন জনপদে আক্রান্ত করছে অসংখ্য মানুষকে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে প্রাণ গেছে আরও ১১ হাজারের বেশি মানুষের। বিশ্বে মোট আক্রান্ত ১৪ কোটি ৭৮ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যা ৩১ লাখ ২২ হাজার পার হয়েছে। ২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ

কমছে মৃত্যু, বাড়ছে স্বস্তি

খালি হাতেই পার হতে হবে দ্বিতীয় ঢেউ !

সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ

মৃত্যু পৌণে ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

পৌণে ১২ লাখ মানুষ মারা গেলেন

করোনায় মৃত ৫ হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসে পৃথিবীর ৮ লাখ মানুষ নেই

সাড়ে ৭ লাখের বেশি মানুষ মারা গেলেন করোনায়

বিশ্বে একদিনেই ২ লাখ আক্রান্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছেই

নির্ধারিত মুল্যে আইসিডিডিআরবিতে করোনা টেষ্ট

২৪ ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার আক্রান্ত

৩৮ থেকে বেড়ে মৃত্যু ৪৩

ব্রাজিলে একদিনেই শনাক্ত ৫৪ হাজারের বেশি

সপ্তাহ ধরেই মৃত্যু কমপক্ষে ৩৫

মৃত্যু নেমেছে ৪৫ থেকে ৩৭ জনে

লাখ পার হলো আক্রান্ত

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3