নতুন শনাক্ত: ২৮ মার্চ-শূন্য, ২৮ এপ্রিল-৫৪৯ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ২৮ এপ্রিল ২০২০, ১৭:০৪ | আপডেটেড ২৯ এপ্রিল ২০২০, ০৩:০৪

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত মানুষের সংখ্যা পৌণে ১৪ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। না দেখা এক নতুন ঘাতকের কাছে পৃথিবীর ১৩ লাখ ৭৭ হাজার জনের বেশি মানুষ হেরে গেলেন। প্রতি ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুর গতি তা ১৪ লাখের নিয়েই যেনো নিয়ে চলেছে। সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ।

একদিকে সর্বোচ্চ ৫৪৯ জনের শরীরে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে। ২৪ ঘণ্টায় দেশে এর আগে এত রোগি শনাক্ত হয়নি।

করোনা পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, গত মার্চ মাসের ১৯ বা ২০ তারিখেও আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩ জন করে। কিন্তু ঠিক এক মাস পর গত ১৮ এপ্রিল থেকে তা কখনোই ৩শ জনের নিচে নামেনি। বরং কখনো ৪শ এমনকি ৫শ অতিক্রম করছে। মার্চের ২৮ তারিখে দেশে কোনো রোগিই শনাক্ত না হওয়ায় মোট আক্রান্ত যেখানে ৪৮ জনে স্থির ছিল, সেখানে ঠিক এক মাস পর দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৪৬২ জনে। তবে মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। নতুন করে ৩ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৫৫ জনে।

মঙ্গলবার,২৮ এপ্রিল, দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

বুলেটিনে জানানো হয়, নতুন যে ৩ জন মারা গেছেন, তাদের সবাই ঢাকার এবং সবাই ষাটোর্ধ্ব। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৮ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এ নিয়ে মোট সুস্থের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৩৯  জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৩৩২ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। এর আগের দিন ৩ হাজার ৮১২ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৪ হাজার ৭৩৩ জনকে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গতদিনের তুলনায় পরীক্ষার হার বেড়েছে ১৩.৬৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে ১১১ জনকে। আর আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৪৭ জন। এখন পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ৭৮৫ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন মোট ১ হাজার ২৪৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে ২ হাজার ৩৯২ জনকে। এখন পর্যন্ত এক লাখ ৮১ হাজার ৭৯৩ জনকে কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ছাড় পেয়েছেন ৩ হাজার ২৩১ জন। অন্যদিকে বর্তমানে মোট কোয়ারেন্টিনে আছেন ৭৬ হাজার ৮৪০ জন।

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

দেশে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ

কমছে মৃত্যু, বাড়ছে স্বস্তি

খালি হাতেই পার হতে হবে দ্বিতীয় ঢেউ !

সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ

মৃত্যু পৌণে ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

পৌণে ১২ লাখ মানুষ মারা গেলেন

করোনায় মৃত ৫ হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসে পৃথিবীর ৮ লাখ মানুষ নেই

সাড়ে ৭ লাখের বেশি মানুষ মারা গেলেন করোনায়

বিশ্বে একদিনেই ২ লাখ আক্রান্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছেই

নির্ধারিত মুল্যে আইসিডিডিআরবিতে করোনা টেষ্ট

২৪ ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার আক্রান্ত

৩৮ থেকে বেড়ে মৃত্যু ৪৩

ব্রাজিলে একদিনেই শনাক্ত ৫৪ হাজারের বেশি

সপ্তাহ ধরেই মৃত্যু কমপক্ষে ৩৫

মৃত্যু নেমেছে ৪৫ থেকে ৩৭ জনে

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3