রাজশাহীর ডেঙ্গু ঢাকা থেকে!

তারেক মাহমুদ, রাজশাহী প্রতিনিধি, হেলথ নিউজ | ৬ নভেম্বর ২০১৮, ২১:১১ | আপডেটেড ৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:১১

mosha1

ঢাকা ছাড়িয়ে রাজশাহীতেও দেখা দিয়েছে মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব।

গত সপ্তাহে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মেডিসিন বিভাগের ইউনিটের ওয়ার্ডগুলোতে ডেঙ্গু আক্রান্ত অনেক রোগী ভর্তি আছেন।

কয়েক মাস ধরে ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব থাকলেও রাজশাহীতে ডেঙ্গুর কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি। কিন্তু হঠাৎ করেই গত তিন মাস থেকে রাজশাহীতে ডেঙ্গুর দেখা মিলেছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে গত সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে। আক্রান্ত রোগীরা রাজশাহীর সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল গুলোতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

রামেকের মেডিসিন বিভাগের ৪ নম্বর ইউনিটে কর্মরতদের তথ্য অনুযায়ী, গত তিন মাসে এই ইউনিটে ১০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ৮ জন পুরুষ ও ২ জন নারী।

রামেকের সব ইউনিট মিলে তিন মাসে প্রায় ৫০ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হন। অর্থাৎ প্রতিমাসে ১৮ থেকে ২০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন। বেসরকারি চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যার কোনো হিসেব জানা যায়নি।

চিকিৎসকরা বলেন, গত কোরবানির ঈদের সময় ঢাকা থেকে আসা অনেকেই ডেঙ্গু ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। তারা ঢাকাতেই আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে ঈদ করতে এসে চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের মাধ্যমে এবার রাজশাহীতে ডেঙ্গুর ব্যতিক্রমী প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে।

আক্রান্ত একাধিক রোগীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তাদের স্বজনদের মধ্যে কেউ কেউ ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে এসে চিকিৎসা নিয়েছিলেন।

চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতি ১০ জন আক্রান্ত রোগীর মধ্যে ৬ জন ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়েছেন। আর রাজশাহীতে আক্রান্ত হয়েছে ৪ জন।

ডেঙ্গু আক্রান্ত গোদাগাড়ীর বাসিন্দা রবিউল ইসলাম হেলথ নিউজকে বলেন, ঢাকা থেকে তিনি আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে চিকিৎসা নেন।

নগরীর সাহেববাজারের একটি মেসের বাসিন্দা ইমরুল কায়েস হেলথ নিউজকে বলেন, দিনের বেলায় দুই-একদিন তিনি মশার কামড় খেয়েছিলেন, তার কয়েকদিন পরেই তার জ্বর আসে। রামেক হাসপাতালে ভর্তি হলে ডেঙ্গু ভাইরাস ধরা পড়ে।

আক্রান্ত আরেকজন মিজানুর রহমান হেলথ নিউজকে বলেন, তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জে ব্যাংকে চাকরি করেন। সেখানে দিনের বেলায় কামড় খেয়ে কয়েকদিন পরে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে চিকিৎসা নেন।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রতিরোধের উপরই জোর দিচ্ছেন চিকিৎসকরা; আক্রান্তদের প্যারাসিটামল বাদে অন্য কোনো ওষুধ না খাওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বাদশাহ হেলথ নিউজকে বলেন, ডেঙ্গুর ভাইরাসবাহী এডিস মশা স্থির ও স্বচ্ছ পানিতে বংশবৃদ্ধি করে। এই মশা সাধারণত দিনের বেলায় কামড়ায়।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে তিনি বাসাবাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখার পরামর্শ দেন। ঢাকা থেকে যে সব বাস-ট্রাক বা ট্রেন আসে, সেগুলোতে ওষুধ ছিটানোর উপর জোর দেন তিনি, যেন ওই মশাগুলোকে সেখানেই মারা যায়। তবে অধ্যাপক বাদশাহ বলেন, “এ বিষয়ে চিন্তিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। রাজশাহীতে এই মশা তেমনভাবে বংশবিস্তার করতে পারে না। সবাই একটু সচেতন থাকলে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা নেই।”

এ বিষয়ে রাজশাহী সিভিল সার্জেন সনজিত কুমার সাহা হেলথ নিউজকে বলেন, “ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ দেখার পরে আমরা রাজশাহীতে  সতর্কতার বিষয়ে জনসাধারণকে বিভিন্ন ভাবে দিকনির্দেশনা দিয়েছি।

“রাজশাহীতে ডেঙ্গুর তেমন প্রকোপ ছিল না। এখন কিছুটা হলেও স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে সর্বোচ্চভাবে ডেঙ্গু প্রতিরোধে চেষ্টা করব।”

বিষয়: ,

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

এমন ভারতবর্ষ দেখেনি কেউ আগে

দেশে করোনায় মৃত্যুর মিছিলে ১১ হাজারেরও বেশি মানুষ

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ

কমছে মৃত্যু, বাড়ছে স্বস্তি

খালি হাতেই পার হতে হবে দ্বিতীয় ঢেউ !

সর্বত্রই এখনো অসহায় আত্মসমর্পণ

মৃত্যু পৌণে ১২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

পৌণে ১২ লাখ মানুষ মারা গেলেন

করোনায় মৃত ৫ হাজার ছাড়ালো

করোনাভাইরাসে পৃথিবীর ৮ লাখ মানুষ নেই

সাড়ে ৭ লাখের বেশি মানুষ মারা গেলেন করোনায়

বিশ্বে একদিনেই ২ লাখ আক্রান্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছেই

নির্ধারিত মুল্যে আইসিডিডিআরবিতে করোনা টেষ্ট

২৪ ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার আক্রান্ত

৩৮ থেকে বেড়ে মৃত্যু ৪৩

ব্রাজিলে একদিনেই শনাক্ত ৫৪ হাজারের বেশি

সপ্তাহ ধরেই মৃত্যু কমপক্ষে ৩৫

মৃত্যু নেমেছে ৪৫ থেকে ৩৭ জনে

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

      ভিটামিন ডির ঘাটতি পূরণে কী করণীয়?

300-250
promo3