২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬

Generic selectors
Exact matches only
Search in title
Search in content
Search in posts
Search in pages

স্বাস্থ্যের জন্য ‘গতানুগতিক বাজেট’

নিজস্ব প্রতিবেদক, হেলথ নিউজ | ১১ জুন ২০১৮, ১৪:০৬ | আপডেটেড ১২ জুন ২০১৮, ০১:০৬

1934

প্রস্তাবিত বাজেটে স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ গতবারের চেয়ে টাকার অঙ্কে বাড়লেও প্রয়োজনের তুলনায় তা অপ্রতুল মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, প্রতিবারের মতো এটাও স্বাস্থ্য খাতের গতানুগতিক বাজেট।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য গত ৭ জুন সংসদে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত যে বাজেট উপস্থাপন করেছেন, তাতে স্বাস্থ্য খাতে ২৩ হাজার ১২৫ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

বিদায়ী অর্থবছরে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ ছিল ২০ হাজার ৬৫১ কোটি টাকা। টাকার অঙ্কে গত বছরের তুলনায় এবার ২ হাজার ৭৩২ কোটি টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করা হলেও খাতগুলোর মধ্যে শতকরা হারে বরাদ্দ কমেছে স্বাস্থ্যে।

স্বাস্থ্য খাতে সরকারের নজর কম মন্তব্য করে স্বাস্থ্য অধিকার আন্দোলন জাতীয় কমিটির সভাপতি ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডা. রশীদ-ই মাহবুব হেলথ নিউজকে বলেন, “এবারের বাজেটে নতুন কিছু নেই। টাকার অঙ্কে স্বাস্থ্যখাতে বরাদ্দ বাড়লেও চিকিৎসা সেবার জায়গায় বরাদ্দ অপ্রতুল। শতাংশের হিসেবে মোট বাজেটের ৫ শতাংশও এবং জিডিপির ১ শতাংশ বরাদ্দও দেওয়া হয়নি স্বাস্থ্যখাতে।”

এই অল্প টাকায় চিকিৎসা করতে গিয়ে ভোক্তারা কতটুকু সুবিধা পাবেন, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন তিনি। গত বছরের তুলনায় এবার রোগীরা কম সেবা পাবেন বলেও তার ধারণা।

রশীদ-ই মাহবুব বলেন, “বাজেট বরাদ্দ দেখে মনে হচ্ছে সরকার চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত না করে বেসরকারি খাতে ছেড়ে দিয়েছে। এই অল্প বরাদ্দে জনদুর্ভোগ বাড়বে, এবং চিকিৎসকরাও সঠিকভাবে সেবা প্রদানে হিমশিম খাবেন।”

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের লিভার বিভাগের প্রধান অধ্যাপক হারুন আর রশীদ হেলথ নিউজকে বলেন, বাংলাদেশের জনগণকে সঠিকভাবে চিকিৎসা সেবা দিতে বাজেট আরও বাড়ানো দরকার।

এবার বরাদ্দের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ পরিচালনায় ব্যয় ৯ হাজার ১২৫ কোটি টাকা রাখা হয়েছে। স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়ন ব্যয় ধরা হয়েছে ৯ হাজার ৪০ কোটি টাকা। স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের পরিচালন ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ১২৮ কোটি টাকা এবং উন্নয়ন ব্যয় ধারা হয়েছে ২ হাজার ১০০ কোটি টাকা।

বারডেম হাসপাতালের ল্যাবরেটরি সার্ভিসেস বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরীর মতে, গতানুগতিক বাজেট হলেও সঠিক ব্যবস্থাপনায় খরচ করতে পারলে এই বাজেটও অপ্রতুল নয়। দরকার সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা।

তিনি হেলথ নিউজকে বলেন, “বাজেটের বেশির ভাগই বেতনভাতা ও নতুন নতুন নির্মাণ কাজে ব্যয় হয় মন্তব্য করে প্রকৃত অর্থে মানে জনগণের সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে অর্থ থাকে কম।”

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মহিবুল হাসান স্বাস্থ্য খাতে অব্যবস্থাপনার ত্রুটির দিকটি তুলে ধরেন।

তিনি হেলথ নিউজকে বলেন, বাংলাদেশে বর্তমান চিকিৎসা সেবা অনেকভাবে নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে গেছে। উপজেলা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে চিকিৎসা সেবার বিষয়ে অনেক মেশিন এবং সরঞ্জাম রয়েছে, যা তেমন কোন কাজে লাগছে না। এগুলো অযথা পড়ে আছে। এই বিষয়ে বাজেটের বড় একটি অংশ চলে যাচ্ছে।

অন্যদিকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোর্শেদ আহমদ হেলথ নিউজকে বলেন, প্রতিটি মেডিকেলে নতুন আধুনিক যন্ত্রপাতির সরবারাহ বাড়াতে হবে।

তার মতে, বাজেটের প্রয়োগ ঠিক মত করতে পারলে দেশে স্বাস্থ্য খাতের অনেক উন্নয়ন করা সম্ভব।

সিলেটের নর্থইষ্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং নর্থইষ্ট ক্যান্সার হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অধ্যাপক ডা. শাহারিয়ার হোসাইন চৌধুরী আবার বেসরকারি খাতকে গুরুত্ব দেওয়ার উপর জোর দিচ্ছেন।

তিনি হেলথ নিউজকে বলেন, “সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি যারা বেসরকারি ভাবে চিকিৎসা ক্ষেত্রে কাজ করছে, তাদেরকে জোগান দেওয়া না হলে দেশের স্বাস্থ্য খাত উন্নত করা সম্ভব না।”

বিষয়:

নোটিশ: স্বাস্থ্য বিষয়ক এসব সংবাদ ও তথ্য দেওয়ার সাধারণ উদ্দেশ্য পাঠকদের জানানো এবং সচেতন করা। এটা চিকিৎসকের পরামর্শের বিকল্প নয়। সুনির্দিষ্ট কোনো সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়াই শ্রেয়।

স্বাস্থ্য সেবায় যাত্রা শুরু

আঙুর কেন খাবেন?

ছোট এ রসালো ফলটিতে আছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ ও ভিটামিন। আঙুরে রয়েছে ভিটামিন কে, সি, বি১, বি৬ এবং খনিজ উপাদান ম্যাংগানিজ ও পটাশিয়াম। আঙুর কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়াবেটিস, অ্যাজমা ও হৃদরোগের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

সব টিপস...

চকলেটে ব্রণ হয়?

এই পরীক্ষাটি চালাতে গবেষকরা একদল ব্যক্তিকে এক মাস ধরে ক্যান্ডি বার খাওয়ায় যাতে চকলেটের পরিমাণ ছিল সাধারণ একটা চকলেটের চেয়ে ১০ গুণ বেশি। আরেক দলকে খাওয়ানো হয় নকল চকলেট বার। চকলেট খাওয়ানোর আগের ও পরের অবস্থা পরীক্ষা করে কোনো পার্থক্য তারা খুঁজে পাননি। ব্রণের ওপর চকলেট বা এতে থাকা চর্বির কোনো প্রভাব রয়েছে বলেও মনে হয়নি তাদের।

আরও পড়ুন...

              শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য, কী করবেন?

300-250
promo3